সবুজ সাথী প্রকল্পের সাইকেল চুরিকে কেন্দ্র করে নদীয়ায় বিজেপি এবং তৃণমূলের সংঘর্ষ

সবুজ সাথী প্রকল্পের সাইকেল চুরিকে কেন্দ্র করে নদীয়ায় বিজেপি এবং তৃণমূলের সংঘর্ষ

আমরাই খবর ব্যুরোঃ সবুজ সাথী প্রকল্পের সাইকেল চুরি করে বেআইনিভাবে বিক্রি করার অভিযোগে বিজেপি এবং তৃণমূলের সংঘর্ষ। গুলি লেগে আহত দুই পক্ষের প্রায় পাঁচ জন। ঘটনাস্থলে বিশাল পুলিশবাহিনী। নদীয়ার হাঁসখালি থানার কৈখালী এলাকার ঘটনা।

তৃণমূলের অভিযোগ ওই এলাকার বিজেপি কর্মীরা সবুজ সাথী প্রকল্পের সাইকেল চুরি করে বিক্রি করেছিল। সেই ঘটনা হাতেনাতে ধরে ফেলে তৃণমূল কর্মীরা। এরপর এই এলাকায় উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। ওর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছালে উত্তেজনা আরো বেড়ে যায়। প্রথমে হাতাহাতি পরে হঠাৎ বন্দুক বের করে গুলি চালানো হয়। গুলি লেগে প্রায় দুই পক্ষের ৫ জন আহত হন। তড়িঘড়ি তাদের শক্তিনগর জেলা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসা হয়। একজনের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাঁকে কলকাতা নীলরতন হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

ঘটনার পর দুই পক্ষের কর্মীরাই হাসপাতালে এসে উপস্থিত হন। ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন তৃণমূলের প্রাক্তন সভাপতি সমীর পোদ্দার। জানা যায় হাসপাতালে মধ্যেই এক তৃণমূল কর্মীর কাছ থেকে হঠাৎ একটি রিভলবার মাটিতে পড়ে যায়। যদিও সমীর পোদ্দারের দাবি ওটা তার দেহরক্ষী ছিল। বিজেপির দাবি তৃণমূলের তোলা অভিযোগ ভিত্তিহীন। তৃণমূল সরকারি সাইকেল বেআইনিভাবে বিক্রি করেছিল তার প্রতিবাদ করাতেই এই হামলা। ঘটনার জেরে এখনো উত্তপ্ত ওই এলাকা। পরবর্তী সময়ে কৃষ্ণনগর শক্তিনগর জেলা হাসপাতালে তৃণমূল কর্মীদের দেখতে আসলে সেখানে হাসপাতাল অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে তৃণমূল কর্মীরা চলে সলো গান যদিও হাঁসখালি থানার পুলিশের টহলদারি।এর পাশাপাশি কি কারনে এই ঘটনা কারাই বা গুলি চালিয়েছিল তার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

আরও পড়ুন-

আরও পড়ুন-

শেয়ার করুন