চিনে ভয়াবহ গতিতে ধেয়ে আসছে শক্তিশালী ‘চ্যানথু’

চিনে ভয়াবহ গতিতে ধেয়ে আসছে শক্তিশালী ‘চ্যানথু’

আমরাই খবর ব্যুরোঃ চিনে ভয়াবহ গতিতে ধেয়ে আসছে শক্তিশালী  টাইফুন ‘চ্যানথু’। ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে সাংহাই এবং আশপাশের এলাকাগুলির স্কুল বন্ধ করা হয়েছে। স্থগিত করা হয়েছে পরিবহণও। ঘূর্ণিঝড়ের কেন্দ্রে বাতাসের গতিবেগ ঘণ্টায় ১৭০ কিলোমিটারের বেশি বলে জানিয়েছেন সাংহাই  শহর কর্তৃপক্ষ।

অবশ্য গতকাল রবিবার সন্ধ্যার দিকে দুর্বল হচ্ছিল এই সুপার টাইফুন। এবং জানা গিয়েছে, ঘূর্ণিঝড়টি সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আরও দুর্বল হবে। উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে ভারী বৃষ্টিপাত ও ঝোড়ো বাতাস অব্যাহত থাকবে বলে আশঙ্কা।

চিনের আবহাওয়া অফিস বলছে, ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে দেশটির সাংহাই-সহ কোনও কোনও অংশে ২৫০ থেকে ২৮০ মিলিমিটার পর্যন্ত বৃষ্টিপাত হতে পারে। জানা গিয়েছে, চ্যানথুর জেরে সাংহাইয়ের কাছেই জেংজু প্রদেশে রবিবার সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করা হয়েছিল। সেখানকার কিছু শহরে রেল পরিষেবা ও উড়ান বন্ধ করা হয়েছে। স্কুলগুলি আপাতত না খোলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বন্যাসতর্কতা জারি করা হয়েছে ন’টি জেলায়।

সাংহাইয়ের পুডং আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের সব ফ্লাইট সোমবার বেলা ১১টা থেকে স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। বেলা তিনটা থেকে শহরটির অন্য বিমানবন্দরের উড়োজাহাজ চলাচলেও নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ের  কারণে বন্ধ রাখা হয়েছে সাংহাই শহরের পাতালরেল। সোমবার ও আগামীকাল মঙ্গলবার দর্শনার্থীদের জন্য বন্ধ থাকবে পার্ক ও পর্যটনকেন্দ্র।
দক্ষিণ কোরিয়া হয়ে জাপানের দিকে বেঁকে যাওয়ার কথা এটির। 

আরও পড়ুন-

আরও পড়ুন-

শেয়ার করুন