‘গদ্দাররা এবার বিজেপির প্রার্থী’, এগরার সভা থেকে বললেন মমতা

‘গদ্দাররা এবার বিজেপির প্রার্থী’, এগরার সভা থেকে বললেন মমতা

আমরাই খবর ব্যুরো: ভোটের আগে পূর্ব মেদিনীপুরকে পাখির চোখ করেছে তৃণমূল। আজ পূর্ব মেদিনীপুরে প্রচারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  এগরা, পটাশপুর ও মেচেদায় জনসভা রয়েছে তৃণমূলনেত্রীর। এদিন এগরার সভায় তিনি বলেন, ‘কৃষকদের খাজনা মকুব করা হয়েছে। আমপানের টাকা দেওয়া হয়েছে। শষ্য বিমা বিনা পয়সায় আমরা দিই। এখানে মৎস্যজীবীদের কার্ড আমিই প্রথম করে দিই।’

বলেন, ‘নন্দীগ্রামে ভূমি আন্দোলনের শুরু। নন্দীগ্রামে এবার প্রার্থী আমি। অনেকে বলেছিল কেন নন্দীগ্রাম থেকে লড়ছ? আমি বলেছি, বাংলার যে প্রান্তেই যাই সেটাই আমার ঘর। বিনা পয়সায় রেশন পেতে আর যেতে হবে না, এবার পাবেন দুয়ারেই। আগামীতে কৃষকরা বছরে ১০০০০ টাকা করে পাবেন। স্বাস্থ্যসাথী কার্ডে ৫ লক্ষ টাকার চিকিৎসার সুবিধা পাবেন।’

তিনি বলেন, ‘তৃণমূল ক্ষমতায় এলে সব মহিলাকে এবার মাসে ৫০০ টাকা করে হাতখরচা। এবার থেকে স্টুডেন্ট কার্ড, ৪ শতাংশ হারে সুদে ১০ লক্ষ টাকা। গদ্দাররা ছিল, অনেক বেইমানি করেছে, এবার আর হবে না। গদ্দাররা এবার বিজেপির প্রার্থী। বিজেপির পুরনো লোকেরা নেই। ঘরে বসে কাঁদছে। সিপিএমের হার্মাদ ও তৃণমূলের কিছু লোক বিজেপিতে গিয়ে ছড়ি ঘোরাচ্ছে। বিজেপিতে সুরক্ষিত নয় মহিলারা।’

তাঁর কথায়, ‘পায়ে চোট করে দিয়েছে, খুব যন্ত্রণা হয়। আমার যন্ত্রণা মা-বোনেদের হাতে ছেড়ে দিয়েছি। নির্বাচন এলেই বিজেপি বলে হরি হরি, পিছনে ডাকাতি করি। মাথায় তিলক লাগিয়ে বলছে একে-ওকে মারব। বাংলা বাংলায় থাকবে, এটা বিজেপির ঘর নয়।’

আরও পড়ুন-

আরও পড়ুন-

শেয়ার করুন